1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
  4. salauddinsuvo80@gmail.com : Salauddin Suvo : Salauddin Suvo
স্বামী-স্ত্রী বেশে উপস্থাপনায় রিয়াজ-স্পর্শিয়া
মঙ্গলবার, ০৩ অগাস্ট ২০২১, ০৪:০৫ পূর্বাহ্ন

স্বামী-স্ত্রী বেশে উপস্থাপনায় রিয়াজ-স্পর্শিয়া

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ১৩ জুলাই, ২০২১
  • ৩৩ জন পড়েছেন

ঈদুল আজহার ‘আনন্দমেলা’য় স্বামী-স্ত্রীর ভূমিকায় হাজির হয়ে উপস্থাপনা করেছেন চিত্রনায়ক রিয়াজ ও অভিনেত্রী অর্চিতা স্পর্শিয়া। ‘আনন্দমেলা’র মঞ্চ দিয়েই উপস্থাপক হিসেবে তাদের দুজনে প্রথমবার একসঙ্গে হাজির হওয়া।

এবারের আনন্দমেলার আয়োজনে থাকছে- প্রয়াত পপ সম্রাট আজম খানের ৩টি গানের (ওরে সালেকা ওরে মালেকা, আলাল ও দুলাল এবং বাংলাদেশ) কোলাজ করে একটি গান। এটি পরিচালনা করেছেন ফুয়াদ নাসের বাবু। আর গান গেয়েছেন সংগীতশিল্পী মেহেরীন, আলিফ আলাউদ্দিন ও আরমিন মুসা। এছাড়াও ‘আগে কি সুন্দর দিন কাটাইতাম’ গানটি নতুনভাবে ফিউশন করে উপস্থাপন করা হয়েছে। গেয়েছেন পুলক অধিকারী, রেজওয়ান, অনন্যা, বিপাশা ও মৃদুলা । জীবনের সবচেয়ে বড় আনন্দ যে মানবতার সেবার মধ্যে গানে গানে এই কথাগুলোই ফুটিয়ে তুলবেন সংগীতশিল্পী পিন্টু ঘোষ। মৌলিক এই গানটির সুর ও সংগীত পরিচালনার পাশাপাশি গেয়েছেন তিনি নিজেই। দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের বিখ্যাত সব মিষ্টির নাম নিয়ে তৈরি করা হয়েছে আরেকটি মৌলিক গানটি। গানটির গীতিকার লিটু সাখাওয়াত। সুর ও সংগীত পরিচালনা করেছেন এজাজ ফারাহ। কণ্ঠ দিয়েছেন এজাজ ফারাহ্, নিয়াজ মাখদুম ও সাদিত। বিগত পাঁচ দশকের পাঁচ জনপ্রিয় নায়িকা শবনম, ববিতা, অঞ্জু ঘোষ, মৌসুমী, ও মাহিয়া মাহির জনপ্রিয় বিভিন্ন সিনেমার গানের কোলাজ করে আলাদাভাবে ৩টি নৃত্য পরিবেশন করেছেন এ সময়ের জনপ্রিয় তিন চিত্রনায়িকা নুসরাত ফারিয়া, মাহিয়া মাহি ও বিদ্যা সিনহা মিম। দর্শকদের বৈচিত্র্য দিতে তৈরি হয়েছে সমাজ সচেতনমূলক তিনটি নাট্যাংশ। যেখানে অভিনয় করেছেন রিয়াজ, স্পর্শিয়া, মিশা সওদাগর, আতাউর রহমান, জিল্লুর রহমান, আহসানুর রহমান, হুমায়ুন কাবেরী, গাজী রোকন ও যাদু। বিটিভির এবারের আনন্দমেলা প্রযোজনা করেছেন হাসান রিয়াদ ও এল রুমা আক্তার এবং অনুষ্ঠানটির পাণ্ডুলিপি লিখেছেন লিটু সাখাওয়াত। এটি প্রচারিত হবে ঈদের দিন রাত ১০টার ইংরেজি সংবাদের পর।

অনুষ্ঠানটির পরিকল্পক এবং বিটিভির পরিচালক ( অনুষ্ঠান ও পরিকল্পনা) জগদীশ এষ বলেন, ‘পুরোপুরি ভিন্ন আঙ্গিকে সাজানো হয়েছে বাংলাদেশ টেলিভিশনের এবারের ‘আনন্দমেলা’। প্রচলিত মেলায় আমরা যা দেখি, তার সবই ছিল আনন্দমেলার সেটে। মূলত আমাদের সংস্কৃতি থেকে ক্রমশ হারিয়ে যেতে থাকা মেলাকে ঘিরেই তৈরি হয়েছে এই ‘আনন্দমেলা’। এখানেও দেখা যাবে- যাত্রার প্যান্ডেল, সার্কাস, পুতুল নাচ, বায়োস্কোপ, নিশানা লাগানো, চুড়ি, মুড়ি-মুরকির দোকান, মিষ্টির দোকান, বেতের নানা উপকরণের দোকান, নাগরদোলা, বানর নাচ, হাওয়াই মিঠাই, খাবারের দোকান, পোশাকের দোকান ইত্যাদি। প্রতিটি দোকানকে কেন্দ্র করে তৈরি হয়েছে নানা ঘটনা এবং এগিয়ে চলেছে ঈদের ‘আনন্দমেলা’র কাহিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘বিটিভির জনপ্রিয় এই অনুষ্ঠানটি নিয়ে বরাবরই দর্শকদের ব্যাপক কৌতূহল থাকে। আমরাও চেষ্টা করি তাদের মনপূত বিনোদন দেয়ার। তবে এবার দর্শকেরা একটু বেশিই চমকে যাবেন। ঈদ অনুষ্ঠানটিতে আমাদের সংস্কৃতি থেকে হারিয়ে যাওয়া মেলা’র স্বাদ পাবেন তারা। আশা করছি, ব্যতিক্রমী এই আয়োজনটি দর্শক উপভোগ করবেন।’

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০২০-২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!