1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
  4. salauddinsuvo80@gmail.com : Salauddin Suvo : Salauddin Suvo
কুকুরের উপর গাড়ি উঠানোর ঘটনায় হামলায়-আহত ৪
সোমবার, ১৮ অক্টোবর ২০২১, ১১:১৬ অপরাহ্ন

কুকুরের উপর গাড়ি উঠানোর ঘটনায় হামলায়-আহত ৪

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ২১ সেপ্টেম্বর, ২০২১
  • ৪৩২ জন পড়েছেন

মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের আদমপুর ইউনিয়নে কনেপক্ষ ওয়ালিমাতে যাবার সময় মাইক্রোবাসের চাকার নিচে একটি কুকুর পড়ে যায়। এ নিয়ে বাকবিতন্ডার পর হামলা চালিয়ে মাইক্রোবাসরে ৪ যাত্রীকে আহত করা হয়। আহতরা কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আছে।

মঙ্গলবার (২১ সেপ্টেম্বর) বেলা ২টায় আদমপুরের আদমপুর-পূর্ব জালালপুর সড়কে এ ঘটনাটি ঘটে। এ হামলা ঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আহতরা হলেন, কমলগঞ্জ সদর ইউনিয়নের বাঘমারা গ্রামের মৃত তৈয়ব উল্ল্যার ছেলে সোয়াব আলী(৫৫). একই গ্রামের তোয়াব আলীর ছেলে ইসমাইল মিয়া(২১) রবি মিয়া (২৫) ও গাড়ি চালক রজব আলী (৩০)।

প্রত্যক্ষদর্শী ও স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন আহতদের সূত্রে জানা যায়, সোমবার বাঘমারা গ্রামের তোয়াব মিয়ার মেয়ের বিয়ে হয় উপজেলার আদমপুর ইউনিয়নের আদকানি গ্রামের রশিদ মিয়ার ছেলে আমনি মিয়ার সাথে। বিয়ের পরবর্তী অংশ হিসেবে মঙ্গলবার ওয়ালিমাতে কনের বাড়ির লোকজন দুই মাইক্রোবাসে বরের বাড়ি যাচ্ছিলেন। সেখানে যাওয়ার পথে বেলা ২টায় আদমপুরের আদকানি-পূর্ব জালালপুর সড়কে একটি কুকুর দৌড়ে এসে মাইক্যোবাসের নিচে পড়ে যায়। এসময় সামান্য ভাবে আহত হয় এবং পড়ে কুকুরটি সেখান থেকে দৌড়ে চলে যায়।

এসময় হঠাৎ করে আদকানি গ্রামের হান্নান মিয়া, শামীম ও খতই মিয়া নামে তিনজনসহ আরও কয়েকজন মিলে দা,কোদাল,কাটের রান্দা নিয়ে এসে তাদের উপড় হামলা চালায়। এ হামলায় মাইক্রোবাস চালক রজবসহ ৪ জন আহত হয়েছেন।

কমলগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের জরুরী বিভাগে কর্তব্যরত চিকিৎসক অভিজীৎ সিংহ বলেন. আহতদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে। তবে আহতদের মধ্যে সোয়াব আলীকে নামে একজনকে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি রাখা হয়েছে। তবে আহতরা জানান, এ ঘটনায় তারা থানায় একটি অভিযোগ করবেন।

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে আদমপুর ইউনিয়নের সাবেক চেয়ারম্যান সাব্বির আহমদ ভূঁইয়া ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘তিনি এ বাড়িতে দাওয়াত খেতে এসেছিলেন। বের হয়েই পথিমধ্যে এ ঘটনাটি শুনেন। পরে সেখানে গিয়ে উভয় পক্ষকে সান্তনা দেন এবং আহতদের স্থানীয় স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে যাওয়ার ব্যবস্থা করেন। পরে তিনি বিষয়টি সামাজিকভাবে সমাধানের জন্য উভয় পক্ষকে বলেন।’

হামলাকারী শামীমকে পাওয়া না গেলে তার ভাই লতিফ খান বলেন, ‘এ ঘটনায় সুষ্ঠু বিচার করে দেওয়া হবে। তিনি চেষ্টা করছেন আহতদের দেখতে যাবেন’।

এ বিষয়ে কমলগঞ্জ থানার পরিদর্শক (তদন্ত) সোহেল রানা জানান,‘এখনো থানায় কোন অভিযোগ হয়নি,আর অভিযোগ পেলে আইনি ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।’

কমলগঞ্জের ডাক/এসএস

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০২০-২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed