1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
আম্পান নিয়ে আতঙ্ক নয় সজাগ থাকুন: মমতা
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫০ অপরাহ্ন

আম্পান নিয়ে আতঙ্ক নয় সজাগ থাকুন: মমতা

  • প্রকাশিত : বুধবার, ২০ মে, ২০২০
  • ৪৫৪ জন পড়েছেন

কলকাতা: যত সময় এগোচ্ছে, ততই পশ্চিমবাংলার সঙ্গে সাইক্লোন আম্পানের দূরত্ব কমছে। অপরদিকে, সব রকমভাবে প্রস্তুত রাজ্য প্রশাসন। এবার শুধু শিকার করার পালা।

বুধবার (২০ মে) দুপুরের পর রাজ্যের দীঘার সমুদ্র সৈকতে আছড়ে পড়তে চলেছে শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড়। ওই সময় ঘূর্ণিঝড়ের বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৫৫ থেকে ১৬৫ কিমি। তবে আম্পানের সর্বোচ্চ বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১৮৫ কিমি।

পুর্বাভাস অনুযায়ী স্থলভাগে আছড়ে পড়ার সময় কলকাতায় ঝড়ের সর্বোচ্চ বেগ হতে পারে ঘণ্টায় ১১০ থেকে ১৩০ কিমি। ফলে বুধবার কলকাতায় সব বাজার বন্ধ রাখার জন্য অ্যাডভাইসরি জারি করেছে কলকাতা আবহাওয়া দফতর।

অপরদিকে আবহাওয়া দফতরের পুর্বাভাস অনুযায়ী, শেষ ৬ ঘণ্টায় ১৭ কিলোমিটার বেগে ধেয়ে আসছে আম্পান। দিক পরিবর্তন করে উত্তর পূর্ব অভিমুখ অর্থাৎ পশ্চিমবাংলার দিকে ধেয়ে আসছে এই ঝড়। এই মুহূর্তে পারাদ্বীপ থেকে প্রায় ৪০০ কিলোমিটার, দীঘা থেকে ৫০০ কিলোমিটার দূরে অবস্থান করছে।

এ নিয়ে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সাংবাদিক বৈঠকে জানিয়েছেন, সাগর, ফ্রেজার গঞ্জ, বাসন্তী, ক্যানিং সহ একাধিক সমুদ্র উপকূলবর্তী এলাকায় আঘাত হানবে আম্পান। বেশি আঘাত হানতে সক্ষম হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা। ফলে সব রকমভাবে প্রস্তুত আছে রাজ্য সরকার।

সাইক্লোন সেন্টার তৈরি করা হয়েছে। সামাজিক দূরত্ব মেনেই চলছে প্রস্তুতির কাজ। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ২ লক্ষ, উত্তর ২৪ পরগনায় ৫০ হাজার, পূর্ব মেদিনীপুরে ৪০ হাজার এবং পশ্চিম মেদিনীপুরে ১০ হাজার মানুষকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে আনা হয়েছে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

বুধবার দুপুর ২টা নাগাদ দক্ষিণ ২৪ পরগনার সাগরে হিট করবে আম্পান। তাণ্ডব চলবে মধ্যরাত পর্যন্ত। এই ঝড়ের তিনটে অংশ। প্রথমে মাথা হিট করবে। তারপর চোখ হিট করবে। আর শেষ হল টেইল। এই টেলেই সব উড়িয়ে নিয়ে যায়। ঘুর্ণিঝড় ফণীর সময় উড়িষ্যায় এমনটাই হয়েছিল। ফলে আয়লার থেকেও ভয়ঙ্কর হতে পারে আম্পান।

আম্পানে সবচেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হবে দক্ষিণ ২৪ পরগনা। ক্ষতিগ্রস্ত হবে উত্তর ২৪ পরগনা, পশ্চিম মেদিনীপুরও। আগামীকাল বেলা ১১টা পর থেকে বৃহস্পতিবার সকাল অব্দি বাড়ির বাইরে না বেরোনোর নিষেধ জারি করেছে সরকার।

পাশাপাশি মমতা জানান, যারা ত্রাণ শিবিরে আছেন, তারা ত্রাণ শিবিরের ভেতরেই থাকবেন। প্রশাসন অনুমতি দেওয়ার পর বেরোবেন। রাজ্যের প্রশাসনিক ভবন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে আম্পান নিয়ে এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করছেন মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে সতর্কও করলেন রাজ্যবাসীকে।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০১৯-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!