1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
শনিবার, ২৮ জানুয়ারী ২০২৩, ১২:৪৫ অপরাহ্ন

ভার্চুয়ালে অমিতের নজরে বাংলা, মমতার জবাব

  • প্রকাশিত : মঙ্গলবার, ৯ জুন, ২০২০
  • ৩৫৬ জন পড়েছেন

ডাক অনলাইন ডেস্ক:: আগামী ২১ জুলাই তৃণমুল কংগ্রেসের শহীদ দিবসের জমায়েত ভার্চুয়াল করা হবে কি না—সেটা দলীয় স্তরে আলোচনা করেই সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছেন, ভার্চুয়াল জমায়েত করতে গেলে কোটি কোটি টাকা প্রয়োজন। তৃণমূল কংগ্রেসের এত টাকা কোথায়? তৃণমূল কিছু ভিডিও কনফারেন্স করেছে, কিন্তু তাতে তো এত টাকা লাগে না।

সামনেই ২১ জুলাই, তৃণমূলের শহীদ দিবস, প্রতিবছর ২১ জুলাই বড় সমাবেশের আয়োজন করে রাজ্যের শাসকদল। জেলা থেকে সেই সমাবেশে যোগ দিতে আসেন তৃণমূলের কর্মী সমর্থকরা। কিন্তু এবার করোনার জেরে নিষিদ্ধ ভিড়, জমায়েত, সমাবেশ। সেক্ষেত্রে এবার ২১ জুলাই কী হবে, ২১ জুলাই কি হবে না—এমন প্রশ্ন যখন তৃণমুল কংগ্রেসের কর্মী সমর্থকদের মনে, তখন তার জবাব দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা।

এদিকে ফেসবুক ও ইউটিউবে মঙ্গলবার ভার্চুয়াল জনসভা কার্যত ব্রিগেড চলো’র ডাক দিয়েছে বিজেপি। যার প্রধান বক্তা কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। করোনা থাকলেও বিজেপির ফোকাসে যে ২০২১-এর বিধানসভা নির্বাচন তা মঙ্গলবারের কর্মসূচি থেকেই স্পষ্ট। আত্মনির্ভর ভারত-এ করোনা-সোশ্যাল ডিস্ট্যান্সিং জনসংযোগের ক্ষেত্রে যে কোনও বাধা হয়েই দাঁড়াবে না—সেই বার্তা-ই দিতে চাইছে বিজেপি শিবির।

এদিকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা সংক্রমণ রুখতে লকডাউনের মেয়াদ বৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছেন। ৩০ জুন পর্যন্ত গোটা দেশে পঞ্চম দফার লকডাউন জারি রয়েছে। তবে পশ্চিমবঙ্গের ক্ষেত্রে তা ছিল ১৫ জুন পর্যন্ত। এর মাঝে বেশ কিছু ক্ষেত্রে ছাড়ও দেওয়া হয়েছিল। ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হতে শুরু করেছিল জনজীবন। প্রায় আড়াই মাস পর সোমবার অফিসমুখো হয়েছিলেন চাকুরিজীবীরা। কিন্তু আনলক ওয়ানের শুরু থেকেই প্রতিদিনই লাফিয়ে বেড়েছে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা। যা আতঙ্ক বাড়িয়েছে মানুষের। এই হারে সংক্রমণ বৃদ্ধির পেছনে রাজ্যের ঢিলেঢালা মনোভাবকেই দায়ী করেছেন বিরোধীরা। এই পরিস্থিতিতে সোমবার ফের লকডাউনের মেয়াদবৃদ্ধির কথা ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। জানিয়েছেন, ৩০ জুন অবধি রাজ্যে জারি থাকবে লকডাউন।

পাশাপাশি তিনি বলেছেন, গণপরিবহন চালু হয়েছে, ফলে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। পরবর্তীতে আরও বেশি হারে সংক্রমণের আশঙ্কা থেকেই যাচ্ছে। তাই প্রত্যেকে সচেতন হন। নিয়মাবলি মেনে চলুন। তবে আরও কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছেন মমতা। ধর্মীয় সভা, বিয়ে বাড়ি অথবা যেকোনও অনুষ্ঠানে ১০ জনের পরিবর্তে ২৫ জন পর্যন্ত জমায়েত করতে পারবেন বলে জানিয়েছেন তিনি।

এছাড়া, কলকাতা ও শহরতলির রাস্তায় বাইসাইকেল চালানোয় অনুমতি দিয়েছে রাজ্য। যারা সাইকেল নিয়ে কর্মস্থলে যাবেন, তারা যেন সাবধানে প্যাডেল করেন—সেই পরামর্শও দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০২০-২১ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!