1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
‘জীবন রক্ষাকারী’ ডেক্সামেথাসোনকে স্বাগত জানালো ডব্লিউএইচও
মঙ্গলবার, ২৭ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০১:২২ অপরাহ্ন

‘জীবন রক্ষাকারী’ ডেক্সামেথাসোনকে স্বাগত জানালো ডব্লিউএইচও

  • প্রকাশিত : বুধবার, ১৭ জুন, ২০২০
  • ৪২৭ জন পড়েছেন

অনলাইন ডেস্ক:  করোনা আক্রান্ত গুরুতর অসুস্থ রোগীদের ‘মৃত্যুহার কমানো’ ডেক্সামেথাসোন ওষুধকে স্বাগত জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)।

‘যেসব রোগীদের অক্সিজেন কিংবা ভেন্টিলেটর প্রয়োজন হয় তাদের মৃত্যুহার কমানোর প্রথম চিকিৎসা ব্যবস্থা হতে যাচ্ছে এটি,’ মন্তব্য করে বিবৃতিতে ডব্লিউএইচও প্রধান টেড্রোস আধানম গিব্রাইয়াসুস বলেন, ‘এটা দারুণ খবর।’

মঙ্গলবার রাতে বিবিসির প্রতিবেদনে বলা হয়, ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালে এই ওষুধটি ভেন্টিলেটরে যাওয়া এক তৃতীয়াংশ রোগীর জীবন বাঁচিয়েছে। যাদের অক্সিজেন সাপোর্ট দরকার হয়েছে তাদের মধ্যে এক পঞ্চমাংশ রোগী বেঁচে ফিরেছেন। করোনার চিকিৎসায় এমন উপকারিতা এতদিন কোনো ওষুধে পাওয়া যায়নি।

এই ওষুধটি আগে থেকে বাংলাদেশেও ব্যবহার করা হচ্ছে। এতদিন করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে এটি ব্যবহারে উপকারিতা পেলেও আন্তর্জাতিক অঙ্গন থেকে ‘নিশ্চয়তা’ এই প্রথম জানলেন দেশিয় চিকিৎসকেরা।

এটি মূলত আইসিইউতে ব্যবহার করার ওষুধ। বাড়িতে চিকিৎসা নেয়া রোগীদের জন্য নয়। উপসর্গের তীব্রতা কম থাকলে ওষুধটি কাজে আসবে না।

ডেক্সামেথাসোন স্টেরয়েড ট্রিটমেন্ট। ১৯৬০ সালের দিক থেকে এটি নানা ধরনের প্রদাহ এবং অ্যাজমা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়।

অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির একদল গবেষক হাসপাতালে ভর্তি হওয়া প্রায় দুই হাজার করোনা রোগীর শরীরে ডেক্সামেথাসোন পরীক্ষামূলকভাবে প্রয়োগ করেছিলেন। প্রাপ্ত ফলাফল বিশ্লেষণ করে দেখা যায়, ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে এই ওষুধ মৃত্যুঝুঁকি ৪০ থেকে ২৮ শতাংশ পর্যন্ত কমিয়ে আনে। আর যাদের অক্সিজেন নেওয়া দরকার, সেসব রোগীর মৃত্যুঝুঁকি কমে ২৫ থেকে ২০ শতাংশ পর্যন্ত।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০১৯-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!