1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
কমলগঞ্জে হামলার পর মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করলো চা শ্রমিকরা
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ০৯:৫২ পূর্বাহ্ন

কমলগঞ্জে হামলার পর মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করলো চা শ্রমিকরা

  • প্রকাশিত : রবিবার, ৫ জুলাই, ২০২০
  • ৩৬৬ জন পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক: মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জের সীমান্তবর্ত্তী ইসলামপুর ইউপির কুরমা চা বাগানে চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নে বাংলাদেশ সরকারের সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের বরাদ্ধকৃত নগদ ৫ হাজার টাকা বিতরনে কমিটির দুর্নীতি ও অনিয়মের অভিযোগ তুলে রোবাবার (৫ জুলাই) সকাল ১১টায় চা শ্রমিক নেত্রী গীতা রাণী কানুর নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত চা শ্রমিকদের মানববন্ধনের প্রস্তুতি নিলে তাতে হামলা চালায় প্রতিপক্ষ। এতে কুরমা চা বাগানে উত্তেজনা দেখা দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পরে পুলিশের উপস্থিতিতেই বেলা ১টায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।

জানা যায়, কুরমা চা বাগান পঞ্চাযেত কমিটির সভাপতির নেতৃত্বে আরও একদল শ্রমিক এ মানববন্ধন অনুষ্ঠানে বাঁধার সৃষ্টি করলে দুই দল চা শ্রমিকের মাঝে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। উত্তেজনার এক পর্যায় দুই দল চা শ্রমিকের মাঝে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া হয়। ফলে ২ নারীসহ ৬ জন আহত হয়েছেন। ঘটনার খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা থেকে পুলিশের একটি দল ঘটনাস্থলে আসলে পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হলে পুলিশি উপস্থিতিতে মানবন্ধন অনুষ্টিত হয়।

চা শ্রমিক নেত্রী গীতা রানী কানু কমলগঞ্জের ডাককে বলেন, গত জুন মাসে সমাজসেবা অধিদপ্তর থেকে চা শ্রমিকদের জীবনমান উন্নয়নের জন্য কমলগঞ্জের ২২টি চা বাগানের তালিকাভুক্ত চা শ্রমিকদের ৫ হাজার টাকার সহায়তা চেক প্রদান করা হয়। তবে জনপ্রতিনিধি ও চা বাগান পঞ্চায়েতের মাধ্যমে করা এসব তালিকায় প্রকৃত অসংখ্য হত দরিদ্র চা শ্রমিককে বাদ দিয়ে চা শ্রমকি নয় এমন মানুষের নাম রয়েছে। এর প্রতিবাদে রোববার সকালে কুরমা চা বাগানে মানববন্ধনের আয়োজন করা হলে তাতে বাঁধা সৃষ্টি করেন বাগান পঞ্চায়েত সভাপতি নারদ পাশী, সাদত আলী, সাধু পাশী, সুরজান বিবি, বাবু লাল, আরজু মিয়া, গীতা দাস, হারিছ মিয়ার নেতৃত্বে একটি দল।

এসময় উত্তেজনার সৃষ্টি হলে আহত হন কার্তিক পাল (৫০), নওশাদ মিয়া (৩৮), উষা পাল (৩৫), বাবুল কৈরী (৩০), গীতা রানী কানু (৪০) ও দ্বীপ কুমার (৩৮)। এ ঘটনার খবর পেয়ে কমলগঞ্জ থানা থেকে ২৫ সদস্যের পুলিশের একটি দল এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। এ ঘটনায় কমলগঞ্জ থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করবেন বলেও গীতা রানী কানু জানান।

তবে কুরমা চা বাগান পঞ্চায়েত কমিটি সভাপতি নারদ পাশী বলেন, চা শ্রমিকদের ৫ হাজার টাকার তালিকায় কোন ভুল ছিল না। সঠিক মানুষের নাম তালিকায় রয়েছে। গীতা রানী কানু অহেতুক আন্দোলন শুরু করেছে। এতে দরিদ্র চা শ্রমিকরা পরবর্তীতে সমাজসেবার প্রদত্ত ৫ হাজার টাকা নাও পেতে পারেন। তাই তিনিসহ সাধারণ চা শ্রমিকদের একটি অংশ মানববন্ধন কর্মসূচিতে আপত্তি জানিয়েছিলেন। পুলিশ আসার পর পরিস্থিতি শান্ত হয়ে যায়।

কমলগঞ্জ থানার ওসি মো. আরিফুর রহমান বলেন, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। তাছাড়া গীতা রানী কানুর নেতৃত্বে চা শ্রমিকদের একটি পক্ষ মানববন্ধন কর্মসূচিও পালন করেছে। এ ঘটনায় এখনও (রোববার বিকাল সাড়ে ৪টা পর্যন্ত) কোন অভিযোগ হয়নি।

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০১৯-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!