1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. editor@kamalgonjerdak.com : Editor : Editor
স্বাস্থ্য বিধি না মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে চা শ্রমিকদের মাঝে সমাজ সেবার সহায়তার অর্থ প্রদান
বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১২:১৮ পূর্বাহ্ন

স্বাস্থ্য বিধি না মেনে লাইনে দাঁড়িয়ে চা শ্রমিকদের মাঝে সমাজ সেবার সহায়তার অর্থ প্রদান

  • প্রকাশিত : সোমবার, ২০ জুলাই, ২০২০
  • ২৪৩ জন পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিনিধি:: সমাজ সেবা অধিদপ্তর থেকে চা শ্রমিকদের জীবন মান উন্নয়নে তালিকাভুক্ত চা শ্রমিক পরিবার প্রতি ৫ হাজার টাকা চেক প্রদান করা হয়। করোনা সংক্রমণকালে স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা করে মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে গা ঘেষাঘেষি করে লাইনে দাঁড়িয়ে সমাজ সেবা অধিদপ্তরের চেকের প্রাপ্ত ৫ হাজার টাকা উত্তোলন করলেন নারী-পুরুষ চা শ্রমিকরা।

রোববার (১৯ জুলাই) সকাল ১১টায় এ চিত্র দেখা যায় সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখায়।

কমলগঞ্জ উপজেলা সমাজ সেবা অধিদপ্তর সূত্রে জানা যায়, চা শ্রমিকদের জীবন মান উন্নয়নের লক্ষে ২০১৯-২০২০ অর্থ বছরে আওতায় কমলগঞ্জের ২২াট চা বাগানের তালিকাভুক্ত প্রায় ৩ হাজার শ্রমিক পরিবারে আর্তিক সহায়তার ৫ হাজার টাকার চেক ইস্যু করা হয়।

তালিকা প্রণয়নে অনিয়মে জেলা প্রশাসক বরাবরে লিখিত অভিযাগে উঠায় গত জুন মাসে চেক বিতরণ করা হলেও ব্যাংক থেকে টাকা প্রদান করা হয়নি। অবশেষে কমলগঞ্জর চা বাগান অধ্যূষিত ইউনিয়নের জনপ্রতিনিধিরা আবারও প্রণিত তালিকা সংশোধন করে দিলে রোববার (১৯ জুলাই) থেকে সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখা থেকে চেকের টাকা উত্তোলণ করেন চা শ্রমিকরা।

তবে রোববার ছিল কমলগঞ্জের শমশেরনগর চা বাগানের ৬০১ টি চা শ্রমিক পরিবারের টাকা উত্তোলণের দিন। রোববার সকাল সাড়ে ৯টা থেকে প্রাপ্ত চেকের টাকা উত্তোলণে সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখার সামনে ভিড় করেন শমশেরনগর চা বাগানের শ্রমিকরা। সকাল ১০টা ব্যাংকের শাখা খুললে করোনা সংক্রমণকালে চা শ্রমিকরা স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষা কওে গা ঘেষাঘেষি করে রাস্তায় লাইনে দাঁড়িয়ে ধীরে ধীরে দোতলায় ব্যাংক শাখায় গিয়ে টাকা উত্তোলন করেন। সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখা অফিসের ভিতরে গিয়ে দেখা যায় স্থান সংকুলাণের অভাবে সাধারণ গ্রাহক ও আর চা শ্রমিকরা মিশে অস্বাভবিক পরিস্থিতর সৃষ্টি হয়েছে।

আলাপকালে নাম প্রকাশ না করে চা শ্রমিকরা বলেন, এমনিতেই খুবই কম মজুরিতে কাজ করতে হয়। আর করোনার সময়ে তারা চরম দুর্ভোগে আছেন। এখন সরকার ৫ হাজার টাকা করে দিয়েছেন কষ্ট করে হলেও ব্যাংক থেকে এ টাকা তুলে নিচ্ছেন। করোনা কি হবে তা তারা জানেন না। তবে তাদের বিশ্বাস সৃষ্টি কর্তা তাদের রক্ষা করবেন।

আলাপকালে সোনালী ব্যাংক কমলগঞ্জ শাখা ব্যবস্থাপক আব্দুল কাইয়ূম স্বাস্থ্য বিধি উপেক্ষার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, এ শাখায় এমনিতেই স্থান সংকুলাণের অভাব রয়েছে। তার ওপর রোববার ছিল শমশেরনগর ইউনিয়নের ৬০১ জন শ্রমিকের সমাজ সেবার আর্থিক সহায়তার চেকের টাকা উত্তোলণের নির্ধারিত তারিখ। সকাল ১০টা থেকে টানা বেলা ২ টার মধ্যেই চা শ্রমিকদের চেকের টাকা প্রদান করা হয়। উপজেলা সমাজ সেবা কার্যালয় ও সংশ্লিষ্ট ইউনিয়ন চেয়ারম্যান মিলে এ তারিখ নির্ধারণ করেছেন। এখানে ব্যাংক ব্যবস্থাপক হিসেবে তারা করার কিছু নেই।

কমলগঞ্জ উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা প্রাণেশ বর্মা বলেন, গত জুন মাসে চেক প্রদান করলেও অভিযোগের কারণে চেকের টাকা উত্তোলণে বিলম্ব হয়েছে।

 

আমাদের ইউটিউব চ্যানেলে সাবস্ক্রাইব করুন

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০১৯-২৩ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!