1. info2@kamalgonjerdak.com : কমলগঞ্জের ডাক : Hridoy Islam
  2. info@kamalgonjerdak.com : admin2 :
  3. salauddinsuvo80@gmail.com : Salauddin Suvo : Salauddin Suvo
রেশমাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে প্রেমিক নিপেশ - কমলগঞ্জের ডাক
বৃহস্পতিবার, ২৬ নভেম্বর ২০২০, ০৩:৪৬ পূর্বাহ্ন

রেশমাকে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে প্রেমিক নিপেশ

  • প্রকাশিত : রবিবার, ১৫ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১৫৩ জন পড়েছেন

নিজস্ব প্রতিবেদক:  মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জে স্কুল ছাত্রী রেশমা বেগমকে (১৭) শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করেছে প্রেমিক আটককৃত দিপেশ উরাং (২৪)।

গত ১৩ নভেম্বর দেওড়াছড়া চা-বাগান থেকে একটি গলিত লাশ উদ্ধারের ২৪ ঘন্টার মধ্যে হত্যাকান্ডের রহস্য উদঘাটন ও হত্যার সাথে জড়িত ঘাতক প্রেমিক দিপেশ উরাংকে আটক করে পুলিশ।

শনিবার (১৪ নভেম্বর) রাতে ঘাতক প্রেমিককে সুনছড়া চা-বাগান বাজার থেকে আটক করা হয়। সে পেশায় একজন সিএনজি চালক ও সুনছড়া চা-বাগানের মারাং উরাং এর ছেলে।

শনিবার রাতে রেশমার ছোট ভাই রহমত আলী বাদী হয়ে একটি হত্যা মামলা দায়ের করলে রোববার বিকাল ৪ টায় মৌলভীবাজার বিজ্ঞ আদালতে পাঠালে ১৬৪ ধারায় হত্যার ঘটনা বনর্ণা দিয়েছে ঘাতক প্রেমিক দিপেশ।

পুলিশ ও ঘাতক প্রেমিকের জবানবন্ধীর সুত্রে জানা যায়, পেশায় সিএনজি চালক দিপেশ উরাং এর সাথে পার্শবর্তী মাধবপুর চা-বাগানের মৃত আব্দুর রহিমের মেয়ে স্কুলছাত্রী রেশমা বেগমের সাথে পরিচয় হয় একটি বিয়েতে। সেই পরিচয়ের সুত্রেই দীর্ঘদিনের প্রেমের সর্ম্পক গড়ে উঠে তাদের। এক পর্যায়ে প্রেমিক দিপেশ রেশমার সাথে সর্ম্পক ছিন্ন করতে চাইলে রেশমা বাঁধা হয়ে দাঁড়ায় তার। সেই থেকে পথের কাটা সরাতে রেশমাকে হত্যার পরিকল্পনা নেয় ঘাতক প্রেমিক দিপেশ।

গত ৯ নভেম্বর বিকেলে পূর্ব পরিকল্পনার অংশ হিসাবে বিকেলে বেড়ানোর কথা বলে স্কুল ছাত্রী রেশমা বেগমকে তার বাড়ি থেকে মোটর বাইকে করে রহিমপুর ইউপির দেওড়াছড়া চা-বাগানের ভেতরের একটি টিলায় নিয়ে যায়। সেখানে দুজনে গল্পের ছলে রেশমা মাটিতে বসা অবস্থায় কৌশলে পেছন থেকে গলায় রশি পেছিয়ে শ্বাসরুদ্ধ করে হত্যা করে প্রেমিক দিপেশ। হত্যার পর রেশমার লাশ টেনে নিয়ে পার্শবর্তী অন্য এক টিলায় ফেলে দেয়। এমনই লোমহর্ষক ঘটনা উঠে এসেছে ঘাতক প্রেমিকের জবানবন্দীতে।

মৃত স্কুল ছাত্রী রেশমার ভাই রহমত মিয়া কান্নাজড়িত কন্ঠে বলেন, আমার বোনকে যে হত্যা করেছে তার সুষ্টু বিচার দাবী করছি।

এ বিষয়ে কমলগঞ্জ থানার ওসি আরিফুর রহমান বলেন, গত শুক্রবার দেওড়াছড়া চা-বাগান এলাকা থেকে অজ্ঞাত একটি গলিত লাশ উদ্ধার করলে সেই লাশের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখে শনিবার সকালে লাশটি রেশমার বলে নিশ্চিত করে তার পরিবার। তারপর থেকে তদন্তে নামে পুলিশের একটি টিম।

শনিবার রাতেই ঘটনার মুল আসামী রেশমার প্রেমিক দিপেশকে আটক করে তার জবানবন্দী অনুযায়ী হত্যার আলামত উদ্ধার করা হয়।

এ বিষয়ে থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের কার হয়েছে। আজ রবিবার বিকালে গ্রেফতার দেখিয়ে আসামীকে মৌলভীবাজার বিজ্ঞ আদালতে পাঠালে ১৬৪ ধারায় হত্যার দায় স্বীকার করে।

শেয়ার করুন

আরো সংবাদ পড়ুন....
© ২০২০ সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত | কমলগঞ্জের ডাক | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি
Developed By : Radwan Ahmed
error: কপি সম্পূর্ণ নিষেধ !!